Categories
অনলাইনে আয় ইউটিউব টিপস এন্ড ট্রিকস ফেইসবুক

ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার For Pc ২০২০

2020 বছরটা পুরো বিশ্বের জন্যে একটা নতুন অভিজ্ঞতা . করোনা মহামারী সব কিছু থমকে দিয়েছে   তবু কিন্তু কিছুই থেমে নাই , বরং সবাই আগের চেয়ে বেশি উদ্দম নিয়ে কাজ করছে. বিশেষ করে যারা অনলাইন বা ইন্টারনেট দুনিয়ায় কাজ করে তাদের তো এই কারনে পোয়াবারো,  জুম্ এর প্রতিষ্ঠাতা যার শুধু এই মার্চের পর থেকে ইনকাম প্রায় ১২ মিলিয়ন ডলার এবং এখন তিনি আমেরিকান প্রথম ৪০০ ধোনির একজন.

বর্তমান বিশ্ব ভিজ্যুয়াল কনটেন্ট এ পরিপূর্ণ , ইউ টিউবে ভিডিও আপলোড করে বিজ্ঞাপন, বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রচার মাধ্যম  ,  ইন্টারনেট দুনিয়ায় নিজের প্রচার বা নিজের পন্যের প্রচার এর জন্য   একটি সুন্দর ভিডিও e পারে আপনার পণ্য বা ব্র্যান্ড কে সফলতার শীর্ষে পৌঁছে দিতে. একটি সুন্দর ভিডিও তৈরী করতে অবসসই ভিডিও কনটেন্ট গুলো সুন্দর করে এডিট করতে হয়, যার জন্য আপনার দরকের হলো ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার বা ভিডিও এডিটিং টুলস,আজকে আমরা 2020 সালের সেরা ফ্রি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার নিয়া আলোচনা করবো

নামি ভিডিও এডিটিং টুলস গুলো হয় খুব দামি . তবে  নতুন ভিডিও এডিটরদের জন্য সত্যি সুখবর হলো- কিছু বিকল্প ভিডিও এডিটিং টুলস আছে যেগুলো সুম্পূর্ণ বিনামূল্যে পাওয়া যায়,  হোকনা ইনস্টাগ্রাম স্টোরি, ফেইসবুক বিজ্ঞাপন অথবা ইউটুবে এ পণ্যের প্রচারণা – এই টুলসগুলো ব্যাবহার করে,  আপনি সহজেই প্রফেশনাল ভিডিও এডিটর হতে পারবেন ,সাথে হবে আপনার পণ্যের প্রচারণা.

ফ্রি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার 2020:

গুণগত মান বা কোয়ালিটিফুল ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার এর জন্য এবং এর মহাকাব্যিক ফলাফলের জন্য  আপনাকে স্পিলবার্গ হতে হবে না বা তার বাজেট ও লাগবেনা

Light ,Camera, Action  বলার জন্য কাউকে হায়ের না করে নিজেই করতে পারেন  video Editing. কিভাবে সেটা এবং কোন টুলস ব্যাবহার করে আপনি করতে পারবেন আসুন  দেখে নেই-

Best Video Editing Software in 2020 for Desktop

সবগুলো ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারই হয় ফ্রি নয়তো এদের ফ্রি ভার্সন আছে,

1. Blender 2.91 – Free Video Editing Software

বাজারের সেরা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার যা কিনা উইন্ডোজ , ম্যাক এবং লিনাক্স এর জন্য প্রযোজ্য. এটি ওপেন সোর্স প্রোগ্রাম এবং সম্পূর্ণ ফ্রি, এই টুলটি সাধারণত 3D animation suite এর জন্য, কিন্তু এটা দিয়ে আপনি বেসিক কাজগুলো করতে পারবেন.  Video Cuts  and Splicing ,Video Masking . এর মতো জটিল কাজও করতে পারবেন,

আর সেই কারণেই এতে Biggner and Advance user  সবার কাছেই গুরুত্বপূর্ণ. এর রিভিউ রেটও কিন্তু ভালো. ৪.৫ আউট অফ ৫.০০

2. Lightworks – Best Video Editor

আরো একটি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, এটিও উইন্ডোজ , ম্যাক এন্ড লিনুস এর জন্য , এর ফ্রি ভার্সন টি বেশিরভাগ ব্যবহারকারীর জন্য উপযোগী. এর ফ্রি ভার্সন এ আছে-

High Precision Video trimming

Multicam  support

Export to 720p for YouTube

A wide range of video Promote supported

মাসে ২৫ ডলার এর পেইড ভার্সন এ আপনি পাবেন Vimeo  এবং Youtube এর জন্য 4K ভিডিও সাপোর্ট.

3.Shotcut – Video Editor

এটিও উইন্ডোজ , ম্যাক এন্ড লিনুস এর জন্য ,Shotcut হচ্ছে Blender এর মতো পুরো উন্মক্ত, ডাউনলোড করার পর কোনো পেমেন্ট ছাড়াই আপনি সকল ফীচার ব্যাবহার করতে পারবেন, shotcut ব্যবহার এর ক্ষেত্রে কিছু কিছু user এর interface এ প্রবলেম হতে পারে , এর কারণ Shotcut মূলত লিনাক্স এর জন্য ডিজাইন করা. Best for 4K and HD Video Project.

4. Da Vinci Resolve 16 – Video Editor

এটিও উইন্ডোজ , ম্যাক এন্ড লিনুস এর জন্য ,নিস্সন্ধ এটি একটি উন্নত ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, এতে অনেকগুলো পেশাদারি ভিডিও এডিটর এর বৈশিষ্ট রয়েছে,

Video Slicing and Trimming এর পাশাপাশি এতে অডিও এন্ড কালার এর কাজ করতে পারবেন. সফটওয়্যার টি আপনাকে আপনার ভিডিওতে 2D ও 3D টাইটেল যুক্ত করে সুবিধা দিচ্ছে.

5. open short – video editor

এটিও উইন্ডোজ , ম্যাক এন্ড লিনুস এর জন্য ,এটিও পুরোটাই উন্মুক্ত, এর ড্রাগ এন্ড ড্রপ ইন্টারফেসের সহজ ব্যবহার কিছু কিছু ম্যাক ব্যাবহারকারীকেই IMovie র কথা মনে করিয়ে দিতে পারে, Openshot –Imovie ছাড়াও আনলিমিটেড লেয়ার এন্ড অডিও মিক্সিং এর সুবিধা দেয়.

6. Avidemux – Avidemux Download

এটিও উইন্ডোজ , ম্যাক এন্ড লিনুস এর জন্য ,Beginner-দের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং উপকারী. এর interface- টি Navigate করা খুবই সহজ. এটি দিয়ে আপনি বেসিক কাজগুলি করতে পারবেন.

Simple Cutting

Encoding

Filtering

7.Hitfilm Express – Video Editor 

এটি উইন্ডোজ এন্ড ম্যাক  এর জন্য,এটি প্রফেশনাল ভিডিও এডিটরদের টুল- সাথে সকল প্রাইমারি ফীচার তো থাকছেই

{Splicing, Trimming, Audio editing}. এর বিনামূল্যের প্যাকেজ এ ১৮০টির বেশি স্পেশাল   ইফেক্ট আছে. এই সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করার আগে আপনাকে সোশ্যাল মিডিয়া তে একটি স্টেটাস আপডেট দিতে বলবে

8. InVideo- Invideo For Youtube

এটি উইন্ডোজ এন্ড ম্যাক  এর জন্য,এই অনলাইন ভিডিও এডিটিং টুলটি বিজ্ঞাপন দাতা, প্রকাশক, ব্যাক্তি এবং যে কোনো সংস্থা সবার জন্যই দুর্দান্ত.

স্বয়ংক্রিয় Voice Overs  এবং আরো অনেক কিছুর জন্য এটি সেরা. গ্রাহকেরা এর কাস্টমার সার্ভিস এবং দাম নিয়ে খুবই সন্তুষ্ট . এর ব্যাবহার খুব সহজ এবং নমনীয়

9. iMovie – Imovie For Windows 10

এটি ম্যাক এর জন্য,বেশিরভাগ ম্যাক এপ্লিকেশন গুলোর মতো এই টুলটি ব্যবহার খুবই সহজ. এর Drag and Drop interface- এর জন্য ভিডিও এলিমেন্টগুলোকে সহজেই মুভ এন্ড এডিট করা যায়.

Mac ব্যবহার কারীরা এই টুলটি ভিডিও এডিটিং কাজ শিখার জন্য খুব সহজেই ব্যবহার করতে পারেন

10. VSDC Free Video Editor – Vsdc Video Editor

এটি উইন্ডোজ এর জন্য.রঙের মিশ্রণ আপনার ভিডিওর চেহারাই বদলে দিতে পারে আর এই জন্যই আপনার দরকার VSDC. বিনামূল্যের ভার্শনে কালার কারেকশন এবং অডিও এডিটিং এর সুবিধা আছে

প্রো সংস্করণটির দাম $ 19.99 এবং এতে চিত্রের স্থিতিশীলতা, ভয়েস ওভার সাপোর্ট এবং ভিজ্যুয়াল ওয়েভফর্ম অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

আপনি যদি প্রো সংস্করণে আপডেট না করেন, তবে প্রযুক্তিগত সহায়তার জন্য এক মাসের  $ 9.99, বা এক বছরের জন্য 14.99 ডলার ব্যয় করতে হবে।

11. Machete Video Editing Lite

এটি উইন্ডোজ এর জন্য.সাধারণ এবং দ্রুত ভিডিও এডিটিং এর জন্য এই টুলটি উপকারী. বিনামূল্যের ভার্সনে আপনি অডিও এডিট করতে পারবেন না কিন্তু অডিও ট্র্যাক গুলো সরাতে পারবেন.Free Verson টি শুদু  AVI এবং WMV file-ই সাপোর্ট করে.    Paid Verson-19.95 doller.

12. Video Pad – videopad video editor

এটি উইন্ডোজ এর জন্য,মাল্টিমিডিয়া ভিডিও এডিটিং এর জগতে আপনার প্রথম পদক্ষেপের জন্য Video Pad টুলটি বেস্ট.

এটি সহজ এবং সহজে ব্যবহার যোগ্য হওয়ায় Beginner-দের জন্য খুবই কার্যকরী. এইটা দিয়া আপনি 3D ভিডিও এডিটিংও করতে পারবেন.

13. Free make Video Converter

 এটি উইন্ডোজ এর জন্য,একটি ফ্রি ভিডিও কনভার্টার যা দিয়ে আপনি ভিডিও ক্লিপ কে মডিফাই করে ওয়েবসাইট এ আপলোড করতে পারবেন.

যেকোনো ভিডিও মোবাইল বা অন্য Gadget-e  প্লে করার জন্য ফ্রি মেকার এর মাধ্যমে মডিফাই করতে পারবেন. Software-টি ৫০০ টিরো বেশি ভিডিও ফাইল ফরমেট সাপোর্ট করে.